বিশ্ববাজারে টানা ৬ সপ্তাহ কমলো জ্বালানি তেলের দামওমিক্রন নিয়ন্ত্রণে ২৩ সুপারিশরাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৭৫প্রতিবেশীর ঘরে অস্ত্র ঢোকালে যুদ্ধ বাধবে: যুক্তরাষ্ট্রকে রাশিয়া৯ হাজার কোটি টাকার প্রকল্পে ঢেলে সাজানো হচ্ছে ঢাবি
No icon

শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে উদ্যোগ সরকারের

দেশে ঘরে বসে অনলাইনে পণ্য কেনাকাটা বা ই-কমার্স ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। কিন্তু কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ ওঠার পর পুরো খাত এখন ভুগছে আস্থার সংকটে। খুব অল্প সময়ে দ্রুত জনপ্রিয়তা পাওয়া কয়েকটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে সম্প্রতি শত শত কোটি টাকা আত্মসাৎসহ গ্রাহক ও মার্চেন্টদের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগে পুরো খাতটির ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে। তবে দেরিতে হলেও নজর দিয়েছে সরকার। সরকার গ্রাহক স্বার্থ সুরক্ষাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছে। এ খাতকে শৃঙ্খলার মধ্যে নিয়ে আসতে আইন প্রণয়ন ও রেগুলেটরি অথরিটি গঠনে ইতোমধ্যে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে দুটি কমিটি এবং একটি সাবকমিটি গঠন করা হয়েছে। একটি কমিটির বৈঠক হয়েছে। অন্যদিকে দেশের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোকে তদারকি ও পরিবীক্ষণের আওতায় আনার কৌশল নির্ধারণে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ গত মঙ্গলবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এএইচএম সফিকুজ্জামানকে সভাপতি করে আরেকটি কমিটি করেছে।


সূত্র জানিয়েছে, ই-কমার্স খাতে ব্যবস্থাপনার মধ্যে নিয়ে আসতে উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এ ক্ষেত্রে গ্রাহকের স্বার্থকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। জানা গেছে, আগামী ১৮ অক্টোবর থেকে সিরিজ বৈঠক করতে যাচ্ছে সরকার। প্রথম বৈঠকে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোকে তদারকি ও পরিবীক্ষণের আওতায় আনার কৌশল নির্ধারণ করা হবে। বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এএইচএম সফিকুজ্জামান। বৈঠকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগ, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ, বাংলাদেশ ব্যাংক, পুলিশের প্রধান কার্যালয়, প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা পরিদপ্তর (ডিজিএফআই), জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই), পুলিশের বিশেষ শাখা (এসবি), বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইনটেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ), জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর), জাতীয় টেলিযোগাযোগ পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র (এনটিএমসি), পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি), কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) একজন করে প্রতিনিধি উপস্থিত থাকবেন।