তিন মোবাইল অপারেটরের ভ্যাট বকেয়া ২৩৩ কোটি টাকাআগামী নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করতে প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকারজাতীয় রবীন্দ্রসঙ্গীত উৎসব ২৭-২৯ জানুয়ারিমানবপাচারে শীর্ষে সুন্দরবন অঞ্চলএক যুগের সর্বনিম্ন এডিপি বাস্তবায়ন
No icon

অবসরের পর মৃত্যু হলে পেনশনের অর্ধেক সমর্পণ

অবসরে যাওয়ার পর কোনো বিচারক মারা গেলে পরিবার যে গ্রস পেনশন পাবে, এর অর্ধেক সরকারের কাছে জমা দেওয়া বাধ্যতামূলক। পাশাপাশি আনুতোষিক ও গ্রস পেনশনসংশ্লিষ্ট বিচারকের পরিবার পাবে অর্ধেক হারে। বৃহস্পতিবার এসব বিধান রেখে বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্টের বিচারক (ছুটি, পেনশন ও বিশেষাধিকার) আইন ২০২৩-এর গেজেট জারি করা হয়। গেজেটে বলা হয়, সহিংস ঘটনায় কোনো বিচারক (প্রধান বিচারপতি, বিচারক, অতিরিক্ত বিচারক) আহত বা নিহত হলে বছরে পেনশন পাবেন ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা। পেনশন ছাড়াও প্রধান বিচারপতি আনুতোষিক পাবেন ৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা, বিচারক ও অতিরিক্ত বিচারক পাবেন ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা। পাশাপাশি অবসরোত্তর একজন প্রধান বিচারপতি বিশেষ ভাতা হিসাবে প্রতিমাসে পাবেন ৭০ হাজার টাকা।
ওই আইনে ছুটির প্রাপ্যতা প্রসঙ্গে বলা হয়, বিচারকরা অর্ধ গড় বেতনের ছুটি কর্মজীবনে সর্বমোট ৩৬ মাসের বেশি ভোগ করতে পারবেন না। আর পূর্ণ বেতনের ছুটি কর্মজীবনের ২৪ ভাগের একভাগ ভোগ করতে পারবেন।

এছাড়া পূর্ণ গড় বেতনে এককালীন ৫ মাস এবং অন্য ছুটি এককালীন ১৬ মাসের অধিক পাওয়া যাবে না। আর পেনশনের টাকা শতভাগ তুলে নেওয়ার পর কেবল জীবিত থাকা সাপেক্ষে ১৫ বছর পর পুনরায় পেনশনের আওতায় আসবেন। আর অবসর গ্রহণকালে প্রাপ্য ছুটির মোট ১৮ মাস নগদায়ন করতে পারবেন।১৯৮২ সালের অর্ডিনেন্স রহিত করে এ আইন গ্যাজেট আকারে জারি করা হয়। সেখানে বলা হয়, আইনটি অবিলম্বে কার্যকর হবে। তবে প্রধান বিচারপতির অবসরোত্তর বিশেষ ভাতা ২০২১ সালের ২৫ মে থেকে কার্যকর ধরা হয়েছে। বিচারকরা অবসর গ্রহণের পর উৎসব ভাতা ও বাংলা নববর্ষের ভাতা পাবেন। পেনশনের অর্ধেক বা শতভাগ সরকারের কাছে সমর্পণ করতে পারবেন। তবে পেনশনভোগকালীন মারা গেলে পরিবার পেনশনের অর্ধেক সরকারের কাছে জমা বাধ্যতামূলক রাখতে হবে।