চুক্তির পরে ইউক্রেন থেকে গম রফতানি শুরুজন্মতারিখের প্রমাণ ছাড়া নিবন্ধন মিলবে নাইতালিতে বসবাসের অনুমতিতে বাংলাদেশিরা চতুর্থগত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২১৮প্রস্তাবেই বেড়ে গেল সয়াবিন তেলের দাম
No icon

আগেভাগেই পশুর হাট, ভোগান্তিতে স্থানীয়রা

আজ চাঁদ দেখা গেলে আগামী ১০ জুলাই পালিত হবে পবিত্র ঈদুল আজহা। এ হিসাবে রাজধানীর দুই সিটি করপোরেশনের বাধ্যবাধকতা অনুযায়ী আগামী ৬ থেকে ১০ জুলাই পাঁচ দিন রাজধানীতে বসবে কোরবানির পশুহাট। তবে সময়ের বেশ বাকি থাকতেই সিটি করপোরেশনের বিধিনিষেধ ভেঙে রাজধানীর বেশ কয়েকটি স্থানে বসে গেছে হাট। শুধু তাই নয়, নির্ধারিত এলাকার বাইরেও পশুর খোঁয়াড় তৈরি করা হয়েছে। স্বাভাবিক যান চলাচল বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। ফলে আশপাশের এলাকায় তৈরি হচ্ছে তীব্র যানজট। ভোগান্তিতে পড়েছেন নগরবাসী। এসব বিষয়ে সিটি করপোরেশন কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ইজারার শর্ত অনুযায়ী, উত্তর শাহজাহানপুর খিলগাঁও রেলগেট বাজারের মৈত্রী সংঘ ক্লাব সংলগ্ন আশপাশের খালি জায়গায় পশুর হাট বসানোর কথা। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ৬ থেকে ১০ জুলাই বা ৭ থেকে ১১ জুলাই সেখানে পশুহাট বসবে। সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, নির্ধারিত জায়গার সীমা ছাড়িয়েও আশপাশে তৈরি করা হয়েছে পশু রাখার খোঁয়াড়। অনেক গরু-মহিষও ইতোমধ্যে হাটে তোলা হয়েছে। ইজারার শর্ত ভঙ্গ করে এটা করেছেন ইজারাদার এএমএম এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী আব্দুল লতিফ।স্থানীয়রা জানান, আব্দুল লতিফ শাহজাহানপুর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি। সরকারি দলের প্রভাব দিয়ে তিনি ধরাকে সরাজ্ঞান করে এ কাজ করছেন। এর জন্য ভোগান্তিতে পড়ছেন এলাকার বাসিন্দারা।তবে আব্দুল লতিফ সমকালের কাছে দাবি করেন, এখনও তেমন পশু হাটে ওঠেনি।

তিনি কেবল হাট বসানোর প্রস্তুতি নিয়েছেন। কয়েকদিন আগে থেকে প্রস্তুতি না নিলে ইজারাদারদের সমস্যা হয়। এ ছাড়া নির্ধারিত জায়গার বাইরে তিনি এখনও যাননি বলে দাবি করেন।ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন বলেন, ঈদের দিন ছাড়া পূর্ববর্তী চার দিন মিলে পাঁচ দিন হাট বসানোর জন্য ইজারা দেওয়া হয়। এই ক দিনের বাইরে হাট বসানোর সুযোগ নেই। দু-একদিন আগে কেউ যদি পশু আমদানিও করে তাহলে সে বিক্রি করতে পারবে না। এখন পশু বিক্রি করছে কিনা সেটা দেখতে হবে। এ ছাড়া নির্ধারিত সময়ের বাইরে যদি হাট বসায় বা নির্ধারিত সীমানার বাইরে যদি হাটের বিস্তৃতি ঘটে তাহলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নিয়ম ভঙ্গ করে হাট বসানো বা প্রস্তুতি নেওয়ার বিষয়ে ইতোমধ্যে যে অভিযোগগুলো এসেছে, তা খতিয়ে দেখা হবে।