সৌদি পৌঁছেছেন বাংলাদেশের ৪৬ হাজার ১২০ হজযাত্রীবাজেট পাস হচ্ছে আজনিয়ন্ত্রণহীন কাভার্ডভ্যানের চাপায় ৪ পথচারী নিহতসিম বিক্রি করতে পারবে না গ্রামীণফোনআগামী জাতীয় নির্বাচন ইভিএমে না ব্যালটে
No icon

টানা চতুর্থ দফায় ক্ষমতায় আসার চ্যালেঞ্জ সামনে

আর মাত্র দুই দিন পর বাঙালির আরেকটি স্বপ্ন পূরণ হতে চলেছে। খুলে যাচ্ছে পদ্মা সেতুর দ্বার; উন্নয়ন-অগ্রগতির আরেকটি মহাসোপান। ষড়যন্ত্রের কূটচাল আর চোখ রাঙানিকে উপেক্ষা করে নিজস্ব অর্থে নির্মিত এই সেতুটিই এখন বাংলাদেশ নামের বদ্বীপ রাষ্ট্রের সক্ষমতার প্রতীক। সেই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে টানা তিন মেয়াদে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের বিস্ময়কর সাফল্যের স্মারক।এই মুহূর্তে পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের সফল বাস্তবায়ন উজ্জীবিত আওয়ামী লীগের সামনে নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ এনে দিয়েছে। দেশের উন্নয়ন-অগ্রগতির ধারাকে ধরে রেখে আগামী বছরের ডিসেম্বর অথবা ২০২৪ সালের জানুয়ারিতে অনুষ্ঠেয় দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হয়ে টানা চতুর্থ দফায় ক্ষমতায় আসাটাই প্রধান চ্যালেঞ্জ। সরকারের সামনে রয়েছে সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন উপহার দেওয়ার চ্যালেঞ্জ। ওই নির্বাচনে বিএনপিসহ সরকারবিরোধী প্রধান দলগুলোকে আস্থায় এনে নির্বাচনের মাঠে নিয়ে আসার চ্যালেঞ্জও রয়েছে তাদের সামনে। নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে বিরোধী পক্ষের সম্ভাব্য আন্দোলন মোকাবিলার কৌশলও নির্ধারণ করতে হবে।

এর আগে অবশ্যই ভোজ্যতেল ও নিত্যপণ্যের দুঃসহ মূল্যবৃদ্ধির লাগাম টেনে ধরে সহনীয় পর্যায়ে নিয়ে আসাসহ জনজীবনের সব সংকট নিরসনের মাধ্যমে জনগণকে পূর্ণ আস্থায় নিয়ে আসতে হবে। করোনা সংকট শেষে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাবে সৃষ্ট অর্থনৈতিক মন্দাভাব কাটিয়ে ওঠাও আওয়ামী লীগ সরকারের জন্য আরেকটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।এসব চ্যালেঞ্জের মধ্যেই আজ বৃহস্পতিবার ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হচ্ছে। ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন যার যাত্রা শুরু। ৭৩ বছরের মাথায় এসে সেই দলটি আসলে কতটা এগোল? এমন প্রশ্নে নানা প্রত্যাশার কথাও তুলে ধরেছেন বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার প্রতিনিধিরা। পাশাপাশি আগামী নির্বাচনে সাফল্যের ধারাবাহিকতা ধরে রেখে দল ও দেশ এগিয়ে যাক- এমনটাও প্রত্যাশা করছেন স্বাধীনতার নেতৃত্বদানকারী দল আওয়ামী লীগের অগণিত সাধারণ নেতাকর্মী-সমর্থক।