তিন মোবাইল অপারেটরের ভ্যাট বকেয়া ২৩৩ কোটি টাকাআগামী নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করতে প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকারজাতীয় রবীন্দ্রসঙ্গীত উৎসব ২৭-২৯ জানুয়ারিমানবপাচারে শীর্ষে সুন্দরবন অঞ্চলএক যুগের সর্বনিম্ন এডিপি বাস্তবায়ন
No icon

চুলেও টক্সিন জমতে পারে কী করবেন?

চুলেও টক্সিন জমতে পারে, হেয়ার ডিটক্স করবেন কী করে? রইল কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। যারা একটু স্বাস্থ্য সচেতন তারা প্রত্যেকেই বডি  ডিটক্সের কথা ভাবেন। যাতে, শরীর থেকে টক্সিন দূর করা যায় এবং স্বাস্থ্যের উন্নতি হয়। শরীরকে ক্ষতিকারক টক্সিন থেকে মুক্তি দেওয়া অত্যন্ত প্রয়োজন। কিন্তু জানলে অবাক হবেন শুধু শরীরই নয় আমাদের চুলকেও ডিটক্স করা প্রয়োজন।

চুলেও শরীরের মতোই টক্সিন জমা হয়। রোজকার ব্যস্ততার জীবনে চুল এবং মাথার ত্বকে ময়লা পড়ে এবং জীবাণু বাসা বাঁধে।যার কারণে মাথা ও চুল তৈলাক্ত হয়ে পড়ে এবং ক্ষতিগ্রস্থ হয়। এর পাশাপাশি হেয়ার ট্রিটমেন্ট বা কেমিক্যাল ব্যবহার করাও চুলের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। নিয়মিত চুলের ডিটক্সিফিকেশনের অনেক উপকারিতা রয়েছে। জেনে নিন চুল ডিটক্সের রাখার বিষয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য-
সঠিক শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে- সঠিক শ্যাম্পু ব্যবহার না করলে চুলে টক্সিন জমতে পারে। হেয়ার টাইপ অনুযায়ী শ্যাম্পু ব্যবহার না করলে চুলের ক্ষতি হয় এবং সহজেই চুল ঝরে পড়ে এবং চুলে প্রচুর পরিমানে টক্সিন জমে যায়।

চিরুনি- চুলের ডিটক্সিফিকশনের জন্য সঠিক চিরুনি ব্যবহার করতে হবে। মোটা দাঁতের চিরুনি দিয়ে নিয়মিত চুল আঁচড়ালে চুলে জমে থাকা টক্সিন বের হতে পারে। এ ছাড়াও নোংরা চিরুনি ব্যবহার করলে চুলে টক্সিন জমে যায়।
প্রাকৃতিক তেল- চুল ডিটক্স করতে প্রাকৃতিক তেল ব্যবহার করতে হবে। যেমন নারকেল তেল, অলিভ অয়েল, বাদাম তেল এই সমস্ত কেমিক্যাল ফ্রি প্রাকৃতিক তেল মাথায় ভাল করে ম্যাসাজ করলে চুলে জমে থাকা টক্সিন সহজেই বের হতে পারে।
কেমিক্যাল জাতীয় দ্রব্য ত্যাগ- মাথায় এমন কোনও উপাদান ব্যবহার করা চলবে না যাতে প্রচুর পরিমানে কেমিক্যাল আছে। কারণ এই জাতীয় উপাদান ব্যবহার করলে চুলে অতিরিক্ত টক্সিন জমে যায়।