বিএনপির ১৫ দিনের কর্মসূচি শুরু আজরাজধানীতে বৃষ্টির সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ৩ জনের মৃত্যুনিম্নচাপ হয়ে ঘূর্ণিঝড় রিমাল এখন কোথায়?ঘূর্ণিঝড় রিমালে মৃত্যুবরণ করেছে ১৪ জনদুপুরের মধ্যে ঢাকাসহ ২০ অঞ্চলে ৮০ কিমি বেগে ঝড়ের আভাস
No icon

মহান আল্লাহ সাহায্য দুর্বলকে সবলের বিপক্ষে সাহায্য করেন

আল্লাহর সাহায্য লাভের নির্ধারিত পথ আছে। সাহায্য পেতে হলে সে রাস্তাই অনুসরণ করতে হবে। কোনো ব্যক্তি আল্লাহর সাহায্য পেতে চাইলে তাকে ঈমান, ধৈর্য ও আল্লাহর সাহায্যের ওপর নির্ভর হতে হবে। ফলে সে পৃথিবীর সব কিছু ত্যাগ করবে এবং সর্বোচ্চ আত্মত্যাগ স্বীকার করে নেবে। কেননা আল্লাহর সাহায্য তার ভাগ্যেই জোটে, তা লাভ করার জন্য যে জীবনের সব কিছু বিসর্জন দিতে প্রস্তুত থাকে।

আল্লাহর সাহায্য যারা পায়, যেভাবে পায়

আল্লাহ মুমিনদের যেসব মূলনীতির আলোকে সাহায্য প্রদান করে থাকেন, তা হলো

১. সাহায্য আল্লাহর পক্ষ থেকেই :আল্লাহ যাকে সাহায্য করেন তাকে পরাজিত করার মতো কোনো শক্তি নেই। আর আল্লাহ যাকে অপদস্থ করেন তাকে সাহায্য করার কেউ নেই। পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, আল্লাহ তোমাদের সাহায্য করলে তোমাদের ওপর জয়ী হওয়ার কেউ থাকবে না।

আর তিনি তোমাদের সাহায্য না করলে, তিনি ছাড়া কে এমন আছে যে তোমাদেরকে সাহায্য করবে? মুমিনরা আল্লাহর ওপরই নির্ভর করুক। (সুরা : আলে ইমরান, আয়াত : ১৬০)

২. যখন সাহায্য চাওয়া হয় : মুমিন যখন আল্লাহর সাহায্য কামনা করে, তখন আল্লাহ তার সাহায্যে এগিয়ে আসেন। ইরশাদ হয়েছে, স্মরণ করো, তোমরা তোমাদের প্রতিপালকের কাছে সাহায্য প্রার্থনা করেছিলে, তখন তিনি তোমাদের জবাব দিয়েছিলেন আমি তোমাদের সাহায্য করব এক হাজার ফেরেশতা দ্বারা, যারা একের পর এক আসবে।’ (সুরা : আনফাল, আয়াত : ৯)

৩. দুর্বলকে সবলের বিপক্ষে সাহায্য করেন : মহান আল্লাহ সংখ্যায় অল্প এবং দুর্বলদেরকে সবলদের বিপক্ষে সাহায্য দান করেন। যেমন তিনি তালুতের অনুসারীদের জালুতের বিরুদ্ধে বিজয় দান করেন। পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘তারা বলল, জালুত ও তার সৈন্যবাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার মতো শক্তি আজ আমাদের নেই। কিন্তু যাদের প্রত্যয় ছিল আল্লাহর সঙ্গে তাদের সাক্ষাৎ ঘটবে তারা বলল, আল্লাহর হুকুমে কত ক্ষুদ্র দল কত বৃহৎ দলকে পরাভূত করেছে। আল্লাহ ধৈর্যশীলদের সঙ্গে আছেন। (সুরা : বাকারা, আয়াত : ২৪৯)

৪. আল্লাহ শক্তিহীনকে রক্ষা করেন :আল্লাহ কখনো কখনো উপায়-উপকরণ ও শক্তিহীন মানুষকে তাঁর সাহায্যের মাধ্যমে রক্ষা করেন। ইরশাদ হয়েছে, যদি তোমরা তাকে সাহায্য না করো, তবে আল্লাহ তাকে সাহায্য করেছিলেন, যখন অবিশ্বাসীরা তাকে বহিষ্কার করেছিল এবং সে ছিল দুইজনের দ্বিতীয়জন, যখন তারা উভয়ে গুহার মধ্যে ছিল, সে তখন তার সঙ্গীকে বলেছিল, বিষণ্ন হইও না, আল্লাহ তো আমাদের সঙ্গে আছেন। (সুরা : তাওবা, আয়াত : ৪০)

৫. যারা আল্লাহকে সাহায্য করে :আল্লাহ তাঁর সেসব বান্দাকে সাহায্য করেন, যারা বিশুদ্ধ ঈমান, নেক আমল ও দ্বিন প্রতিষ্ঠার প্রচেষ্টার মাধ্যমে তাঁকে সাহায্য করেন। ইরশাদ হয়েছে, হে মুমিনরা! যদি তোমরা আল্লাহকে সাহায্য করো, আল্লাহ তোমাদেরকে সাহায্য করবেন এবং তোমাদের অবস্থান দৃঢ় করবেন। (সুরা : মুহাম্মদ, আয়াত : ৭)

৬. মুমিনদের সাহায্য করা হয় :আল্লাহ মুমিনদের সাহায্য করেন। সাহায্য লাভ করা মুমিনের অধিকার। আল্লাহ বলেন, মুমিনদের সাহায্য করা আমার দায়িত্ব। (সুরা : রোম, আয়াত : ৪৭)

৭. মুমিনদের মাধ্যমে সাহায্য করা হয় :আল্লাহ মুমিনদেরকে মুমিনদের মাধ্যমে সাহায্য করেন। ইরশাদ হয়েছে, যদি তারা তোমাকে প্রতারিত করতে চায়, তবে তোমার জন্য আল্লাহই যথেষ্ট। তিনি তোমাকে স্বীয় সাহায্য ও মুমিনদের দ্বারা শক্তিশালী করেছেন। এবং তিনি তাদের পরস্পরের হৃদয়ের মধ্যে প্রীতি স্থাপন করেছেন।(সুরা : আনফাল, আয়াত : ৬২-৬৩)

৮. ফেরেশতা ও প্রাকৃতিক শক্তির মাধ্যমে সাহায্য করা হয় :আল্লাহ তাআলা ফেরেশতা ও প্রাকৃতিক শক্তির মাধ্যমেও মুমিনদের সাহায্য করেন। ইরশাদ হয়েছে, হে মুমিনরা, তোমরা তোমাদের প্রতি আল্লাহর অনুগ্রহের কথা স্মরণ করো, যখন শত্রুবাহিনী তোমাদের বিরুদ্ধে সমাগত হয়েছিল এবং আমি তাদের বিরুদ্ধে প্রেরণ করেছিলাম ঝঞ্ঝাবায়ু এবং এক বাহিনী, যা তোমরা দেখনি। (সুরা : আহজাব, আয়াত : ৯)

৯. শত্রুর মনে ভয় সৃষ্টি করে :আল্লাহ শত্রুর মনে ভয় সৃষ্টির মাধ্যমে মুমিনদের সাহায্য করেন। আল্লাহ বলেন, তোমরা কল্পনাও করোনি যে তারা নির্বাসিত হবে এবং তারা মনে করেছিল তাদের দুর্গগুলো তাদেরকে রক্ষা করবে আল্লাহ থেকে। কিন্তু আল্লাহর শাস্তি এমন এক দিক থেকে এলো, যা ছিল তাদের ধারণাতীত এবং তাদের অন্তরে তা ত্রাসের সঞ্চার করল। (সুরা : হাশর, আয়াত : ২)

১০. বিজয় দানের মাধ্যমে : আল্লাহ কখনো কখনো মুমিনদের বিজয় দানের মাধ্যমে তাদের সাহায্য করেন। আল্লাহ বলেন,তারা ধ্বংস করে ফেলল নিজেদের বাড়ি-ঘর নিজেদের হাতে এবং মুমিনদের হাতেও; অতএব, হে চক্ষুষ্মান ব্যক্তিরা! তোমরা উপদেশ গ্রহণ কোরো। (সুরা : হাশর, আয়াত : ২)

আল কারজাভি