জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের ফিটনেসে খুশি নন ট্রেনারকারওয়ান বাজারে এক ডাবের দাম ১০০ টাকাবিক্ষোভকারীদের সঙ্গে নতুন করে আলোচনায় বসার অঙ্গীকার হংকং প্রশাসকেরযৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটকচান্দিনায় কাভার্ডভ্যানকে মাইক্রোর ধাক্কা, নিহত ২
No icon

করমুক্ত আয় সীমা অপরিবর্তিত

আগামী অর্থবছরের (২০১৯-২০) প্রস্তাবিত বাজেটে সাধারণ করদাতাদের জন্য করমুক্ত আয়ের সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা। যা আগের বছর একই ছিল। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) জাতীয় সংসদে বাজেট অধিবেশনে অর্থমন্ত্রীর পক্ষে এই ঘোষণা পড়ে শোনান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাজেট বক্তৃতায় বলা হয়েছে, নারী ও ৬৫ বছরের বেশি বয়সী করদাতাদের ৩ লাখ টাকা পর্যন্ত কর দিতে হবে না। প্রতিবন্ধী করদাতাদের ক্ষেত্রে এই সীমা ৪ লাখ টাকা। এছাড়া গেজেটভুক্ত যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য করমুক্ত আয়সীমা চলতি বছরের ন্যায় ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকায় অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। এতে আরও বলা হয়, সাধারণ করদাতাদের ক্ষেত্রে আয়ের সীমা আড়াই লাখ টাকার পর প্রথম ৪ লাখ টাকার জন্য ১০ শতাংশ, পরবর্তী ৫ লাখ টাকার জন্য ১৫ শতাংশ, এর পরের ৬ লাখ টাকার জন্য ২০ শতাংশ, আর পরবর্তী ৩০ লাখ টাকা পর্যন্ত মোট আয়ের ওপর ২৫ শতাংশ এবং অবশিষ্ট মোট আয়ের ওপর ৩০ শতাংশ হারে কর দেয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। এটি আগের মতোই আছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার বেলা ৩টায় স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশন শুরু হয়। শুরুতে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বাজেট প্রস্তাব পাঠ করলেও পরে তিনি অসুস্থ বোধ করায় তার পক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাজেট পড়ে শোনান।