১০ বছরে ঢাকায় মোটরসাইকেল বেড়েছে সাড়ে ৫ লাখভারতের সঙ্গে বিমানের ফ্লাইট চালু ২৯ অক্টোবররায়হানের মায়ের অনশন ভাঙালেন মেয়র আরিফ‘অনেক হয়েছে, এভাবে আর চলতে পারে না’মৃত্যু-শনাক্ত কমেছে, বেড়েছে সুস্থতা-নমুনা পরীক্ষা
No icon

চলন্ত বাস থেকে ফেলে হত্যা, চোখের জলে বিচার ও ক্ষতিপূরণ চাইলেন স্ত্রী

স্বামী হত্যার বিচার চেয়ে বক্তব্য দিতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন সেলিনা আক্তার সিমু। গত শুক্রবার রাতে নগরের জিইসি মোড়ে চলন্ত বাস থেকে ফেলে তার স্বামী এইচএনএস অটোমোবাইলসের ডেপুটি ম্যানেজার জসিম উদ্দিনকে হত্যা করা হয়।মঙ্গলবার একই স্থানে হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও পরিবহন নৈরাজ্য বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন করে বাংলাদেশ যাত্রীকল্যাণ সমিতি। এতে স্বামী হত্যার বিচারের পাশাপাশি সন্তানদের নিয়ে বেঁচে থাকতে উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দাবি করেন সেলিনা আক্তার সিমু। তিনি বলেন, অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার প্রতিবাদ করেছিলেন আমার স্বামী। এটাই ছিল তার অপরাধ।বাংলাদেশ যাত্রীকল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী বলেন, চট্টগ্রাম নগরীতে ৩০ লাখ যাত্রীর বিপরীতে মাত্র ২০০ থেকে ৩০০ পরিবহন রয়েছে। পরিবহন দুর্বৃত্তদের হাতে জিম্মি হয়ে পড়েছে নগরবাসী। নগরজুড়ে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের মহোৎসব চলছে। অতিরিক্ত আসন সংযোজনের কারণে গণপরিবহনগুলোতে বসা যায় না, দাঁড়ানো যায় না। সরকার দাঁড়িয়ে যাত্রী পরিবহন নিষিদ্ধ করলেও নগরের প্রতিটি বাস-মিনিবাস, হিউম্যান হলার দাঁড়িয়ে যাত্রীবহন করছে। এসবের প্রতিবাদ করলে যাত্রীদের হেনস্তার শিকার হতে হচ্ছে।

তিনি নিরীহ বাসযাত্রী জসিম উদ্দিনের হত্যাকারীদের যথাযথ শাস্তি ও তার পরিবারকে উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দেওয়ার জন্য সরকারের কাছে দাবি জানান।বাংলাদেশ যাত্রীকল্যাণ সমিতি পাঁচলাইশ থানা সভাপতি ইমতিয়াজ আহমেদের সভাপতিত্বে ও নগর কমিটির সহসভাপতি সুলাইমান মেহেদী হাসানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য দেন সংগঠনের নগর কমিটির সভাপতি সৈয়দ মো. মোখতার উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক ওসমান জাহাঙ্গীর, অর্থ সম্পাদক কামাল হোসেন, নিরাপদ সড়ক চাই নগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক শফিক আহমেদ সাজীব ও পটিয়া ছনহরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ দৌলতী।