সিম বিক্রি করতে পারবে না গ্রামীণফোনআগামী জাতীয় নির্বাচন ইভিএমে না ব্যালটেআগেভাগেই পশুর হাট, ভোগান্তিতে স্থানীয়রাবুস্টার ডোজে গতি নেই সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখীআইএমএফ থেকে ঋণ নেওয়ার পরিকল্পনা করছে সরকার
No icon

নির্বাচন করেই ক্ষমতায় আসতে চাই

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যেনতেনভাবে ক্ষমতায় আসতে চাই না। জনগণের ভোট ছাড়াও ক্ষমতায় আসতে চাই না। নির্বাচন করেই ক্ষমতায় আসতে চাই। আমার ক্ষমতার লক্ষ্যই হচ্ছে- মানুষের কল্যাণ করা। আমি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর মেয়ে। অত সহজে হারতে রাজি নই।পদ্মা সেতুকে দেশের অহংকার ও গর্ব বলে অভিহিত করে তিনি বলেন, নিজস্ব অর্থায়নে এই সেতু নির্মাণের মাধ্যমে বাংলাদেশ নিজের শক্তিমত্তা নতুনভাবে চেনাতে পেরেছে। দেশবাসীর সাহসেই স্বপ্নের পদ্মা সেতু আজ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। সব ষড়যন্ত্র-প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করেই পদ্মা সেতু নির্মিত হয়েছে। আমি মানুষের শক্তিতে বিশ্বাস করি। মানুষের কাছ থেকে যে সাহস ও সহযোগিতা পেয়েছি, সেটাই বড় শক্তি।

গতকাল বুধবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হলে সংবাদ সম্মেলনে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ কারও চাপের মুখে কখনও নতিস্বীকার করেনি, করবেও না। আমাদের যে আত্মবিশ্বাস রয়েছে, তা নিয়েই চলব। জনগণের শক্তি নিয়েই আমরা চলব। দৃঢ়কণ্ঠে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ঝড়-তুফান, বন্যা ও জলোচ্ছ্বাস আসবেই। সেটিকে মোকাবিলা করেই দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অকল্পনীয় বন্যা হয়েছে জানিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, বন্যাদুর্গত এলাকার জনসাধারণকে আশ্বাস দিতে চাই, সরকার তাদের পাশে রয়েছে। মানুষের ভোগান্তি লাঘবে সরকার সর্বোচ্চ উদ্যোগ নিয়েছে। তাদের যাতে কোনো সমস্যা না হয়- সেই ব্যবস্থাও সরকার করবে।

করোনা সংকট চলার দীর্ঘ দুই বছরেরও বেশি সময় পর প্রথমবারের মতো সরাসরি সংবাদ সম্মেলনে এলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যেখানে ২৫ জুন বহুলপ্রত্যাশিত পদ্মা সেতুর উদ্বোধন এবং সিলেট-সুনামগঞ্জসহ সারাদেশের বন্যা পরিস্থিতিসহ সমসাময়িক বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেন তিনি। দীর্ঘদিন পর সাংবাদিকরা তাঁকে বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্ন করেন। প্রধানমন্ত্রীও স্বভাবসুলভ ভঙ্গিতে খোলামেলা জবাব দেন। সংবাদ সম্মেলন মঞ্চে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমির হোসেন আমু, তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমেদ কায়কাউস এবং প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম।