যেসব অঞ্চলে আরও দু’দিন বৃষ্টি হতে পারেখাদ্য অপচয় ৩০ শতাংশ কমালে শক্তিশালী হবে খাদ্য নিরাপত্তাগাজা এখন ডেথ জোন : ডব্লিউএইচওচার বিমানযাত্রীর কাছে লুকানো ছিল ২ কেজি স্বর্ণদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বজ্রসহ বৃষ্টির আভাস
No icon

শূন্যপদ পূরণ ও কর্মসূচি এক সঙ্গে করবে বিএনপি

দলের কেন্দ্রীয়সহ বিভিন্ন কমিটির শূন্যপদ পূরণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। একই সঙ্গে সরকার পতনের এক দফা আন্দোলনকে বেগবান করতে সারাদেশে গণসংযোগসহ ইস্যুভিত্তিক রাজপথে নানা কর্মসূচি করারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটি। এরই অংশ হিসেবে আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে ছয় দিনের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। এ ছাড়া আগামী মাসে সমাবেশ করার চিন্তা করছে দলটি। দলের স্থায়ী কমিটি ও সাংগঠনিক সম্পাদকদের পৃৃথক বৈঠকসূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।গতকাল রবিবার গাজীপুর জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইয়েদুল ইসলাম বাবুলকে ঢাকা বিভাগের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক করেছে বিএনপি। এর মধ্য দিয়ে জাতীয় নির্বাহী কমিটির শূন্যপদ পূরণ শুরু করেছে দলটি। একই দিন ছয় দিনের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে দলটি। দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, একতরফা নির্বাচন বাতিল এবং নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে চলমান আন্দোলনকে বেগবান করতে এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।গত বৃহস্পতিবার রাতে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল সভায় নতুন কর্মসূচি ঘোষণার সিদ্ধান্ত হয়। এ ছাড়া গত শনিবার দলের সাংগঠনিক সম্পাদকদের সঙ্গে ভার্র্চুয়াল বৈঠক করেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

বিএনপির একাধিক গুরুত্বপূর্ণ নেতা জানান, বৈঠকে নেতাকর্মীদের মনোবল ধরে রাখতে কমিটির শূন্যপদ পুরণ এবং যেসব জেলা ও মহানগরে আংশিক কমিটি রয়েছে তা পূরণ করতে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানকে পরামর্শ দিয়েছেন সিনিয়র নেতারা। আন্দোলনে সক্রিয় নেতাদের যোগ্যতা ও ত্যাগ বিবেচনায় নেওয়ার পরামর্শ দেন তারা। পাশাপাশি রাজপথে কর্মসূচিতে সক্রিয় হওয়ারও পরামর্শ দেওয়া হয়।বিএনপির গুরুত্বপূর্ণ একজন নেতা বলেন, জাতীয় স্থায়ী কমিটি থেকে শুরু করে জাতীয় নির্বাহী কমিটির প্রায় ৭০-৮০টি শূন্যপদ রয়েছে। একটি পদের বিপরীতে একাধিক যোগ্য নেতা রয়েছেন। যাচাই-বাছাই ছাড়া যদি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান শূন্যপদ পূরণ করেন,তা হলে তা দলের জন্য চরম ক্ষতি হবে।

গত শনিবার দলের সাংগঠনিক সম্পাদকদের সঙ্গে অনুষ্ঠিত বৈঠকেও দলীয় নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করতে নানা ইস্যু নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সেখানে কর্মসূচি করা যায় তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। এ বৈঠকে সাংগঠনিক সম্পাদকরা দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের নানা প্রস্তাব দিয়েছেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।বিএনপির সিনিয়র একজন নেতা বলেন, আমরা এমন শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি করব, যাতে করে সরকার সংঘাত করার সুযোগ না পায়। গত শনিবার সাংগঠনিক সম্পাদকদের সঙ্গে বৈঠকের একদিন পর গতকাল রবিবার নয়াপল্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী গণসংযোগ ও লিফলেট বিতরণসহ ৬ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেন।কর্মসূচিসমূহ হচ্ছে- আগামীকাল মঙ্গল ও বুধবার ঢাকাসহ দেশের সব মহানগরে, ১৭ ফেব্রুয়ারি সব জেলা শহরে এবং ১৮ ও ১৯ ফেব্রুয়ারি সব উপজেলা, থানা, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে গণসংযোগ ও লিফলেট বিতরণ করবে বিএনপি। এ ছাড়াও ১৬ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার ভারত ও মিয়ানমার সীমান্তে ওই সব দেশের সীমান্তরক্ষীদের ছোড়া গুলিতে নিহত বাংলাদেশিদের স্মরণে বাদ জুমা সারাদেশের সব মসজিদে দোয়া মাহফিল করবে দলটি।উল্লেখ্য, দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন বর্জনের পর আন্দোলনের অংশ হিসেবে বিএনপি সর্বশেষ গত ৩০ জানুয়ারি ঢাকাসহ সারাদেশে কালো পতাকা মিছিলের কর্মসূচি পালন করেছে।