শিক্ষা আইন দ্রুত মন্ত্রিপরিষদে পাঠানো হবে: শিক্ষামন্ত্রীবিধিনিষেধ বাড়বে কিনা পরিস্থিতি দেখে সিদ্ধান্ত : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রীজাতিসংঘে ভোটাধিকার ফিরে পাচ্ছে ইরানপিএসসির সব পরীক্ষায় অংশ নিতে লাগবে টিকার সনদঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস আজ
No icon

কুমিল্লায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আহত অর্ধশতাধিক

কুমিল্লায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ১৫ শিশুসহ অন্তত অর্ধশতাধিক আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ৮ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে নাঙ্গলকোট উপজেলার মৌকরা ইউনিয়নের বিরুলিয়া গ্রামের আনোয়ার হোসেনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।আহতদের জেলা সদর ও কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।নাঙ্গলকোট থানার ওসি মো. ফারুক হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করছেন।পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে উপজেলার বিরুলিয়া গ্রামের একটি বাড়িতে গ্যাসের সিলিন্ডারের সঙ্গে সংযোগ করে বেলুন ওড়ানোর চেষ্টা করে একদল যুবক। এ সময় গ্রামের শিশুসহ বিভিন্ন বয়সের মানুষ ভিড় জমান। হঠাৎ সিলিন্ডারে বিস্ফোরণ ঘটে। এ সময় শিশুসহ অনেকেই আহত হন। রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আহতদের মধ্যে ১৯ জনকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ৮ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।রাতে নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা দেব দাস দেব সাংবাদিকদের জানান, গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে অন্তত ৪২ জন রোগীকে নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। তবে ৩৫ জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কুমিল্লার বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়। এখনো কেউ মারা যাননি।

নাঙ্গলকোট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফারুক হোসেন জানান, বিরুলিয়া গ্রামের আনোয়ার হোসেন বেলুনের ব্যবসা করেন। তিনি বেলুনে গ্যাস ভর্তি করছিলেন। এ দৃশ্য দেখার জন্য ও বেলুন ক্রয়ের জন্য লোকজন ওই বাড়িতে জড়ো হয়। এসময় হঠাৎ গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ ঘটে এবং আনোয়ার হোসেনসহ অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়েছেন। তাদের অনেককে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের বিভাগীয় প্রধান ডা. অধ্যাপক মীর্জা তাইয়্যেবুল ইসলাম বলেন, সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ফলে অনেকে আহত হয়েছেন। কারও হাত-পা ভেঙে গেছে। তবে বড় ধরনের বার্ন না হলেও এখানে ভর্তি ১৯ জনের মধ্যে ৮ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।