বাস ভাড়া বাড়ছেকাল থেকে খুলছে সবকিছুএসএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশিত হবে আগামীকাল ।বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করলেন ট্রাম্পবিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করলেন ট্রাম্প
No icon

ভারতে করোনা সংকটে কেন নীরব শাহরুখ-আমির?

ভারতে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা আরও উন্নত করার দিকে নজর দিয়েছে কেন্দ্র সরকার। ২১ দিনের লকডাউন চলছে। এই সংকট মোকাবিলায় ভারত সরকারের আহ্বানে এরই মধ্যে অনেকেই এগিয়ে এসেছেন। অনেক তারকারাই প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে অনুদান দিচ্ছেন। তালিকায় আছেন অক্ষয় কুমার, সালমান খান, হৃত্বিক রোশন, আনুশকা শর্মা, প্রভাস, আল্লু অর্জুন, শিল্পা শেঠি, আলিয়া ভাট, দেব, লতা মঙ্গেশকরসহ আরও অনেকেই। কিন্তু এই কঠিন পরিস্থিতি নিয়ে এখনও মুখ খুলতে দেখা যায়নি বলিউডের ‘খান’ সাম্রাজ্যের দুই খান শাহরুখ ও আমিরকে। ত্রাণ তহবিলে দান করা তো দূরে থাক, এ দুই তারকা সচেতনবার্তা প্রচারেও নেই!

এরকম দুর্দিনে কোথায় গেলেন তাঁরা? কেন নীরব? সেই প্রশ্ন তুলেছে নেটিজেনদের একাংশ।

শাহরুখ খানকে এর আগে একাধিকবার ভিন্ন ইস্যু নিয়ে মুখ খুলতে দেখা গেছে। কিন্তু করোনা মোকাবিলায় চুপ হয়ে আছেন। আমির খানও তাই।

অন্যদিকে, অমিতাভ বচ্চন করোনা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সক্রিয় থাকলেও কোনও রকম অর্থসাহায্য করেননি। বিগ বি কিংবা তার পরিবারের কেউই কোনো সাহায্যের ঘোষণা দেননি।

উদাসীন নবাবপুত্র সইফ আলি খান এবং কারিনা কাপুরও চুপ আছেন। যদিও সইফকন্যা সারা আলি খান নিজে সাধ্যমতো টাকা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে। এবং সবাইকে আরজিও জানিয়েছেন অর্থ সাহায্য করার জন্য।

অন্যদিকে, অনিল কাপুরের পরিবার থেকেও এখনও কোনোরকম অর্থসাহায্য জমা পড়েনি ত্রাণ তহবিলে। চুপ রয়েছেন দীপিকা পাড়ুকোন, রণবীর সিং, সোনাক্ষীর মতো তারকাও।

তাদের মতো প্রথম সারির তারকাদের কাছ থেকে এমনটা প্রত্যাশিত ছিল না বলেই মন্তব্য করেছেন নেটিজেনরা। অনেকে এদের অকৃতজ্ঞ তারকা বলেও মন্তব্য করছেন।

এদিকে অনেকে দাবি করছেন, বিজেপির সরকারের সঙ্গে সবসময় একটা দূরত্ব বজায় রেখে চলেন শাহরুখ ও আমির খান। তারা কখনো কিছু সাহায্য বা অনুদান দিলে সেটা ব্যাক্তিগতভাবে দেন। তাই সরকারের তহবিল নিয়ে তাদের আগ্রহ নেই।