ডলারে দাম বাড়াল কেন্দ্রীয় ব্যাংকভারতের সংসদে কাশ্মীর নিয়ে স্লোগানলিবিয়ায় বিমান হামলায় ৫ বাংলাদেশি নিহতরাঙ্গামাটিতে জেএসএসের দুই গ্রুপের গোলাগুলি, নিহত ৩বিদিশাকে নিয়ে বাবার বাড়িতে থাকতে এরিকের জিডি
No icon

উপাচার্যের অপসারণ দাবিতে উত্তাল জাহাঙ্গীরনগর

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের অপসারণ দাবিতে আন্দোলনরতদের ওপর হামলার পরে ক্যাম্পাসে উত্তেজনা বিরাজ করছে। ছাত্রলীগ ও আন্দোলনকারীরা মুখোমুখি অবস্থান নেয়ায় আবারও হামলার আশঙ্কা করা হচ্ছে। উপাচার্যের বাসভবনের সামনে মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে উপাচার্যপন্থী শিক্ষক, ছাত্রলীগ এবং আন্দোলনকারীরা। মঙ্গলবার অনির্দিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা ও বিকেল সাড়ে ৫টার মধ্যে হল ত্যাগের নির্দেশের পর পরই বিভিন্ন হল থেকে ছাত্র-ছাত্রীরা মিছিল নিয়ে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে জড়ো হন। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে বিভিন্ন স্লোগান দিচ্ছেন তারা।

উপাচার্যের বাসভবনের সামনে মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে উপাচার্যপন্থী শিক্ষক, ছাত্রলীগ এবং আন্দোলনকারীরা।

উপাচার্যের অপসারণের দাবিতে তার বাসভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছেন আন্দোলনকারীরা। একই স্থানে আন্দোলনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করছেন শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ফলে আবারও হামলার আশঙ্কা করছেন আন্দোলনকারীরা।

বিকেল পৌনে ৩টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান পরিস্থিতিতে উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক জরুরি সিন্ডিকেট সভায় বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। একই সঙ্গে বিকেল ৪টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়। পরে সাড়ে ৫টার মধ্যে হল ত্যাগের সংশোধিত নির্দেশ দেয় প্রশাসন। হঠাৎ হল ছাড়ার নির্দেশে বিপাকে পড়েন শিক্ষার্থীরা। অনেকেই হল ছাড়তে শুরু করেছেন।

এর আগে বেলা ১১টায় উপাচার্যের বাসভবনের সামনে থেকে আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা করে শাখা ছাত্রলীগ নেতারা। এ ঘটনায় নারী শিক্ষার্থীসহ অন্তত ৩৫ জন আহত হন। পুলিশ ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সামনেই আন্দোলনকারী শিক্ষকদের লাঞ্ছিত করেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।