শবে বরাতের ইবাদত সম্পর্কে যা বললেন আল্লামা শফীনা.গঞ্জের মানুষ ছড়িয়ে পড়ছে জেলায় জেলায়ঢাকায় যে ৪৬ এলাকায় করোনা রোগী শনাক্তপ্রাণভিক্ষার আবেদন খুনি মাজেদেরস্পেনে ফের বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা
No icon

জুসের সঙ্গে ওষুধ মিশিয়ে কিশোরীকে গণর্ধষণ, একজন করেছে ভিডিও

কুমিল্লার হোমনা উপজেলার জয়পুর গ্রামে কিশোরীকে গণধর্ষণের সময় মোবাইলে ভিডিওধারণ করেছিল ধর্ষকরা। মামলার প্রধান আসামি জুয়েল রানাকে (২৪) র‌্যাব গ্রেফতার করার পর জিজ্ঞাসাবাদে এমনই তথ্য দিয়েছে। গতকাল বুধবার গভীর রাতে জেলার আদর্শ সদর উপজেলার আলেখারচর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-১১ এর একটি দল। জুয়েল রানা হোমনা উপজেলার জয়পুর গ্রামের মো. জয়নাল আবেদিনের ছেলে। গত ২৩ ফেব্রুয়ারি জুয়েল তার সহযোগীদের নিয়ে এক কিশোরীকে গণধর্ষণ করে। এ ঘটনায় গত ২৯ ফেব্রুয়ারি ভিকটিমের মা বাদী হয়ে হোমনা থানায় মামলা করেন। বৃহস্পতিবার র‌্যাব-১১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল ইমরান উল্লাহ সরকার স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, তিন মাস ধরে ওই কিশোরীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলার চেষ্টা করে আসছিল ধর্ষক। গত ২১ ফেব্রুয়ারি রাতে জুয়েল রানা তার অন্যান্য সহযোগীদের সঙ্গে পরামর্শক্রমে মেয়েটিকে ধর্ষণের পরিকল্পনা করে। পরে গত ২৩ ফেব্রুয়ারি সে মেয়েটিকে ফোনে কথা বলে তার সঙ্গে দেখা করতে বলে। ওই দিন মেয়েটি তার দুই বোনের সঙ্গে গ্রামের ফকির বাড়িতে অনুষ্ঠিত বার্ষিক ওরস দেখতে যায়। ওরস দেখে রাতে বাড়ি ফেরার সময় জুয়েল রানা মেয়েটির সঙ্গে কথা বলবে বলে তার বোনদের থেকে কৌশলে সহযোগী আরিফুল ইসলামের ঘরে নিয়ে জুসের সঙ্গে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে মেয়েটিকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

এ সময় ধর্ষণের দৃশ্য মোবাইল ফোনে ধারণ করা হয়। তারা রাতভর মেয়েটিকে পালাক্রমে ধর্ষণ শেষে ভোর রাতে রাস্তার পাশে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে ওই ঘটনায় মেয়েটির মা বাদী হয়ে গত ২৯ ফেব্রুয়ারি হোমনা থানায় ধর্ষণ মামলা করেন।