‘পাকিস্তানকে পানি দেয়া বন্ধ করে দেবে ভারত’আবরার হত্যায় দেশ-বিদেশে গণস্বাক্ষর অভিযান চালাবে ঐক্যফ্রন্টকুয়েটে প্রতি আসনে লড়বেন ১১ জন, পরীক্ষা ১৮ অক্টোবরপাঁচ কেজি চালে ১ কেজি পেঁয়াজ!মানুষের উচিত হবে সরকারকে ঘাড় ধরে বের করে দেয়া: ড. কামাল
No icon

ফাইনালের ছবি আঁকছে জিম্বাবুয়ে

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার ঘাম ঝরিয়েছে জিম্বাবুয়ে দল। বুধবার এই মাঠেই তাদের লড়াই টুর্নামেন্টে টিকে থাকার। প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ। টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশকে প্রায় হারিয়েই দিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারা পেরে ওঠেনি আফিফ হোসেনের অসাধারণ এক ইনিংসের সঙ্গে। পরের ম্যাচে আফগানিস্তানকেও তারা চাপে রাখতে পেরেছিল একটা পর্যায় পর্যন্ত। চতুর্দশ ওভারে আফগানদের রান ছিল ৪ উইকেটে ৯০। সেখান থেকে নাজিবউল্লাহ জাদরান ও মোহাম্মদ নবির ব্যাটিং তান্ডব দলের রানকে নিয়ে যায় ধরাছোঁয়ার প্রায় বাইরে। হেরে যাওয়া ওই দুই ম্যাচেই জয়ের উপকরণ খুঁজে পাচ্ছেন উইলিয়ামস।

দলের অনুশীলন শেষে এই অলরাউন্ডার জানালেন, ছোট ছোট কিছু ব্যাপার ঠিকঠাক করতে পারলেই ধরা দেবে জয়। বাংলাদেশের বিপক্ষে আমাদের জিততেই হবে। আসলে পরের দুটি ম্যাচই আমাদের আবশ্যিক জয়ের ম্যাচ। আমরা যদি মৌলিক দিকগুলো ঠিকঠাক করতে পারি যেমন ফিল্ডিং, কিছু সূক্ষ্ম ব্যাপার আছে, সেগুলো যদি ঠিকঠাক করতে পারি, দুটি ম্যাচ জয়েরই ভালো সম্ভাবনা আছে আমাদের। আগের দুটি ম্যাচেই আমরা উভয় দলকে কঠিন সময় দিয়েছি, শেষ ওভার পর্যন্ত টেনে নিয়েছি। সামনে যদি মাঠে সময়মতো ভালো সিদ্ধান্ত আরও নিয়মিতভাবে নিতে পারি, আমাদের এগিয়ে যাওয়ার ভালো সম্ভাবনা আছে। অন্য দুই দলের সঙ্গে ব্যবধান খুব বেশি মনে করেন না বলেই ফাইনালের লড়াইয়ে টিকে থাকতে প্রত্যয়ী উইলিয়ামস। অবশ্যই (ফাইনালে খেলা সম্ভব), আমি সবসময়ই বিশ্বাস করি। খেলাটায় পার্থক্য গড়ে সূক্ষ্ম কিছু বিষয়...কিছুই অসম্ভব নয়। আমরা মাঠে নেমে সর্বোচ্চটা উজাড় করে দেব।