বৈঠক শেষে যেসব কর্মসূচি দিল জাতীয় ঐক্যফ্রন্টবর সেজে যেভাবে এলো মোস্তাফিজমেননের গাড়িতে ধাক্কা দেয়া চালকের ‘লাইসেন্স নেই’তাকি উসমানী পাকিস্তান ও মুসলিম বিশ্বের অমূল্য সম্পদ: ইমরান খান৩২ লাখ ডলার থেকে অব্যাহতি পেল বিমান
No icon

গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ থেকে বাঁচতে করণীয়

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় দিনের বেলায় গ্যাস না থাকায় সিলিন্ডারের ওপর নির্ভর করে থাকেন অনেক। এছাড়া নতুন অনেক আবাসিক ও অফিস ভবন রয়েছে যেখানে গ্যাস সংযোগ না থাকায় সিলিন্ডার গ্যাসই একমাত্র ভরসা। তবে এই সিলিন্ডার গ্যাস ব্যবহারের ঝুঁকি অনেক বেশি। তাই গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহারে সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ থেকে বাঁচতে কিছু বিষয় মেনে চলা জরুরি। আসুন জেনে নেই গ্যাস বিস্ফোরণ থেকে বাঁচতে কী করবেন। রান্নার পর চুলা বন্ধ রাখুন: রান্নার কাজ শেষ হলে চুলা বন্ধ রাখতে হবে। এতে একদিকে গ্যাসের অপচয় রোধ হবে অন্যদিকে বিস্ফোরণের ঝুঁকি কমবে।

সিলিন্ডারের ওপরে দেয়াশলাই রাখবেন না: গ্যাসের চুলা জ্বালানোর পর দেশলাই কখনোই সিলিন্ডারের ওপরেই রেগুলেটর বা দেয়াশলাই রাখবেন না। দেয়াশলাই দূরে সরিয়ে রাখুন।

সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার: গ্যাসের পাইপ লাইন পরিষ্কার করতে সাবান বা ডিটারজেন্ট ব্যবহার বিপদজ্জনক। তাই পাইপ পরিষ্কার করতে কখনো এসব জিনিস ব্যবহার করা যাবে না। পাইপ যদি অতিরিক্ত ময়লা হয়ে থাকে তবে পরিষ্কার করতে শুকনো কাপড় বা হালকা ভেজা কাপড় ব্যবহার করতে পারেন।

পাইপ বদলে ফেলুন: পাইপ লাইনে কোনো লিক বা ফুটো থাকলে অবশ্যই তা বদলে ফেলতে হবে। এছাড়া পাইপের গায়ে কোনো কাপড় বা প্লাস্টিক দিয়ে মুড়িয়ে রাখবেন না। এতে বিস্ফোরণের শঙ্কা বাড়ে।

গ্যাসের রেগুলেটর: গ্যাসের রেগুলেটরের নল ভালো করে পাইপ দিয়ে ঢেকে রাখুন। গ্যাস বন্ধ করে ঘর থেকে বের হওয়ার সময় দেখে নিন গ্যাসের পাইপ গরম বার্নারের গায়ে লেগে আছে কি? যদি থাকে সরিয়ে দিন।

গ্যাসের গন্ধ: ঘরে ঢুকেই যদি গ্যাসের গন্ধ পান তবে ফ্যান বা সুইচ বোর্ড বা বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম চালু করবেন না। এতে গ্যাস মুহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পুরো ঘরে আগুন ধরে যাবে। গ্যাস বেরিয়ে যাচ্ছে এমন মনে হলে দ্রুত ব্যবস্থা নিন।

সেফটি ক্যাপ: বিস্ফোরণ থেকে নিরাপদ থাকতে সেফটি ক্যাপ ব্যবহার জরুরি। রান্না শেষে সিলিন্ডারের মুখ ঢেকে রাখুন সেফটি ক্যাপে।