এডিপি থেকে কমছে ৭৫০২ কোটি টাকাভাসমান রোহিঙ্গাদের নিয়ে বিবিসির তথ্যকে ‘ভুল’ বলল বাংলাদেশমে মাসে নয় এখনই পরীক্ষা চান শিক্ষার্থীরাশুক্রবার বন্ধ ঢাকার যেসব মার্কেট ও দর্শনীয় স্থানউত্তাল মিয়ানমার, সেনাবাহিনীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধ
No icon

ভ্যাকসিন নিয়ে ধনী-দরিদ্রের বিভাজন খারাপের দিকে যাচ্ছে: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নিয়ে ধনী ও দরিদ্র দেশগুলোর মধ্যে বিভাজন বাড়ছে। এই বিভাজন দিন দিন খারাপের দিকে যাচ্ছে বলে সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সংস্থাটির প্রধান তেদ্রোস আধানম গেব্রিয়েসুস সোমবার জোর দিয়ে বলেছেন, টিকার ডোজ সমভাবে বিতরণে ব্যর্থ হলে বিশ্বকে কোটি কোটি ডলার অর্থনৈতিক খরচ মোকাবিলা করতে হবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, করোনা মহামারী মোকাবিলায় টিকা তৈরি, উৎপাদন ও সরবরাহ এবং করোনার চিকিৎসা ও পরীক্ষার জন্য সংস্থাটির ২ হাজার ৬শ কোটি ডলার প্রয়োজন। সংস্থাটির প্রধান বলছেন, ধনী দেশগুলো ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শুরু করেছে। কিন্তু বিশ্বের স্বল্পোন্নত দেশগুলো দেখছে এবং অপেক্ষা করছে।

এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, দিন চলে যাচ্ছে। করোনার টিকা পাওয়া এবং না পাওয়ার মধ্যে ব্যবধান ব্যাপক হচ্ছে।

তেদ্রোস আধানম বলেন, টিকা জাতীয়তাবাদের মাধ্যমে স্বল্প সময়ের রাজনৈতিক লক্ষ্য অর্জিত হতে পারে। কিন্তু প্রত্যেক দেশের স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি অর্থনৈতিক স্বার্থের জন্য টিকার সমবণ্টনকে সমর্থন করতে হবে।

ইন্টারন্যাশনাল চেম্বার অব কমার্স এর রিসার্চ ফাউন্ডেশনের এক গবেষণা উদ্ধৃত করে তিনি বলেন, টিকা জাতীয়তাবাদের কারণে বিশ্ব অর্থনীতির ৯ দশমিক ২ ট্রিলিয়ন ক্ষতি হবে।

ডব্লিউএইচও প্রধান বলেন, টিকা আমাদের আশা দিচ্ছে। এ কারণে আমরা এখন যে জীবন হারাচ্ছি তা আরও মর্মান্তিক হয়ে যাচ্ছে। আমাদের অবশ্যই আশা রাখতে হবে; পদক্ষেপও নিতে হবে।