দেশে এক দিনে চল্লিশের বেশি মৃত্যুদেশে করোনার ভারতীয় ধরন শনাক্তবিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মদিন আজ শপিং মলে ভিড়, বালাই নেই স্বাস্থ্যবিধিরআজ থেকে ফেরিতে যাত্রী পারাপার বন্ধ
No icon

করোনা: ঈদে কেনাকাটার বড় ভরসা অনলাইন শপ

করোনাভাইরাসের কারণে ছন্দপতন হলেও জীবন চলছে নতুন বাস্তবতাকে সঙ্গে করেই। মহামারির মধ্যেই কড়া নাড়ছে ঈদ। নিত্যপণ্যের সঙ্গে জামা-জুতাসহ অনেক ফ্যাশন পণ্যের চাহিদা বেড়েছে। তবে চাইলেও একাধিক মার্কেট ঘুরে প্রিয়জনের জন্য ঈদ উপহারের কেনাকাটা করার সুযোগ নেই। স্বাস্থ্য সচেতন মানুষ নিজের ও পরিবারের সুরক্ষায় কেনাকাটা সারতে ঢুঁ মারছেন ভার্চুয়াল মার্কেটপ্লেসে।বাংলাদেশে কি অনলাইনে কেনাকাটা বেড়েছে? এমন প্রশ্নে অনলাইন বাজার ব্যবস্থাপনার সঙ্গে সংশ্নিষ্টরা জানাচ্ছেন, শুধু বাড়ছে না, ধারণার চাইতেও বেশি হারে বাড়ছে। ক্রেতার ক্রয় চাপ সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে অনেক প্রতিষ্ঠান। এক বছর আগের তুলনায় বিভিন্ন ব্র্যান্ড শপের অনলাইন বিক্রি ৫ থেকে ১০ গুণ পর্যন্ত বেড়েছে। এ কারণে কোনো পণ্য বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান নির্দিষ্ট পণ্যের ক্রয় আদেশ নিয়েও ডেলিভারি করতে ব্যর্থ হচ্ছে।

ঢাকার খিলগাঁওয়ের কলেজপড়ূয়া সামিমা সুলতানা জানান, গত বছরের রোজার ঈদের আগে দেশে করোনাভাইরাস হানা দেওয়ায় কেনাকাটার চিন্তা বাদ দিয়েছিলেন। সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় এ বছর অনলাইনে কেনাকাটার সিদ্ধান্ত নেন।অনলাইনে থ্রিপিস, শাড়ি থেকে প্রসাধনসামগ্রী সবকিছু বিক্রি হচ্ছে। নারী উদ্যোক্তারা ফেসবুক লাইভে এসে পণ্যের প্রচার করছেন। তবে অনেক ক্ষেত্রে সময়মতো ডেলিভারি পাওয়া নিয়ে সমস্যা হচ্ছে। যেমন সামিমাই বললেন, দুই সপ্তাহ আগে অগ্রিম টাকা দিয়ে শীর্ষ এক ব্র্যান্ডের জুতার অর্ডার করেও পণ্য বুঝে পাইনি। অর্ডারের সময় স্টক আছে জানালেও এখন কোম্পানি জানিয়েছে, তাদের স্টক ফুরিয়ে গেছে। এসব সমস্যা না থাকলে অনলাইনে কেনাকাটা আরও বাড়ত।