বজ্রবৃষ্টির আভাস, নদীবন্দরে সতর্ক সংকেতভোটারদের দশ আঙুলের ছাপ নেবে ইসিপিছিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ উদ্যোগকে কীভাবে আয়কর রিটার্ন জমা দেবেনজাতিসংঘে উঠছে একাত্তরের গণহত্যার স্বীকৃতির দাবি
No icon

গ্রামেগঞ্জে ১০-১২ ঘণ্টা করে লোডশেডিং

ময়মনসিংহের নান্দাইলে চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা পর বিদ্যুৎ আসে। ১০-১৫ মিনিট থেকে আবার চলে যায়। অর্থাৎ ২৪ ঘণ্টায় দেড় ঘণ্টাও বিদ্যুৎ মেলে না। বগুড়ার সেউজগাড়ী এলাকার বাসিন্দা শাখাওয়াত হোসেন বলেন, ২৪ ঘণ্টায় প্রতিদিন ৭-৮ বার বিদ্যুৎ যায়। একবার গেলে দুই ঘণ্টায় আর আসে না। সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণবাজারের মোবাইল ব্যবসায়ী সাকিব আল মামুন বলেন, দিন-রাতে ১০-১২ বার লোডিশেডিং হচ্ছে। ১০ থেকে ১২ ঘণ্টা বিদ্যুৎ থাকছে না।পাবনায় ২৪ ঘণ্টায় লোডশেডিং হচ্ছে ৭ বার। চট্টগ্রামের চন্দনাইশে দৈনিক ১০ ঘণ্টা লোডশেডিং হচ্ছে। দেড় মাস ধরে বিদ্যুতের ভোগান্তি চলছে। এক সপ্তাহ ধরে সারাদেশের লোডশেডিং চরম আকার ধারণ করেছে। খোদ রাজধানীতেই দিনে তিন-চারবার লোডশেডিং হচ্ছে। এলাকাভেদে ২ থেকে ৪ ঘণ্টা বিদ্যুৎ থাকছে না। মফস্বলের অবস্থা ভয়াবহ। সেখানে বিদ্যুৎ থাকে না, মাঝেমধ্যে আসে।বান্দরবান জেলা শহরে গত ২৪ ঘণ্টায় লোডশেডিং হয়েছে ৮-১০ বার। দিনে টানা ২-৩ ঘণ্টার বেশি বিদ্যুৎ থাকছে না।গ্যাস সংকটের কারণে জুলাই মাসের শুরুতেই বিদ্যুতের উৎপাদন কমে যায়। অর্থ সাশ্রয়ে তেলভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র কম চালানো হচ্ছে। বিপরীতে গরমে বিদ্যুতের চাহিদা বেড়ে গেছে। সরকার লোডশেডিংয়ের মাধ্যমে বিদ্যুতের ঘাটতি মোকাবিলার চেষ্টা করছে