তিন মোবাইল অপারেটরের ভ্যাট বকেয়া ২৩৩ কোটি টাকাআগামী নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করতে প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকারজাতীয় রবীন্দ্রসঙ্গীত উৎসব ২৭-২৯ জানুয়ারিমানবপাচারে শীর্ষে সুন্দরবন অঞ্চলএক যুগের সর্বনিম্ন এডিপি বাস্তবায়ন
No icon

আরও একটি উপশহর করতে যাচ্ছে রাজউক

রাজধানীর ওপর জনঘনত্বের চাপ কমাতে নতুন আরও একটি উপশহর গড়তে যাচ্ছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)। রাজধানীর কাছেই কেরানীগঞ্জ উপজেলায় ৪ হাজার ৭০০ একর ভূমি নিয়ে গড়ে উঠবে উপশহরটি। প্রায় ২৫ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে এই প্রকল্প নিতে প্রয়োজনীয় কার্র্যক্রম শুরু করেছে রাজউক। এবার আর প্লট আকারে না দিয়ে, ব্লকভিত্তিক বরাদ্দ দেওয়া হবে। উন্নত বিশ্বের বিভিন্ন শহরের মানদণ্ড মাথায় রেখে আন্তর্র্জাতিক মানের শহর গড়ার ভাবনায় এগোচ্ছে রাজউক। বর্র্তমানে সম্ভাব্যতা যাচাই-বাছাইয়ের কাজ চলছে।রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মো. আনিছুর রহমান মিঞা আমাদের সময়কে বলেন, রাজউক নতুন একটি প্রকল্প হাতে নিতে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মৌখিক নির্দেশনা পেয়ে সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজ শুরু হয়েছে। কেরানীগঞ্জে ঝিলমিল প্রজেক্টের অদূরে ৪ হাজার ৭০০ একর ভূমি নিয়ে একটি প্রকল্প হবে। এখন সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজ চলমান।

  এরপর উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব (ডিপিপি) চূড়ান্ত করা হবে। তিনি বলেন, আমাদের লক্ষ্য আগামী ৬ মাস পর জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ (একনেক) সভায় প্রস্তাবটি অনুমোদনের জন্য পাঠাব। সেখানে অনুমোদন পেলে ভূমি অধিগ্রহণের জন্য প্রস্তাব পাঠাব। সেখানে আরও ৬ মাস লেগে যাবে। অর্থাৎ এক বছরের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শুরু হবে।রাজউক চেয়ারম্যান বলেন, উপশহরে কতগুলো ব্লক হবে সেগুলো আরও পরে চূড়ান্ত হবে। উন্নত দেশের শহরগুলো যেভাবে গড়ে উঠেছে, তার থেকে ভালো আয়োজন থাকবে সেখানে। তাতে এককভাবে কাউকে প্লট দেওয়া হবে না। এক বিঘার প্লট দিলে ৪ জনকে দেওয়া হবে। দুই বিঘার প্লট হলে ৮ জন পাবে। এটা করতে পারলে দেখা যাবে কোনো প্লট যদি ১২ জনকে দেওয়া হয়। তা হলে সেই প্লটে সুউচ্চু ভবন বানাতে পারবে। প্রকল্প এলাকার ভেতরে খেলার মাঠ করতে পারবে। এটি আন্তর্র্জাতিক মানের উপশহর হবে ।