সংসদ নির্বাচন : তৈরি হচ্ছেন সাড়ে ৭ লাখ ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাইসি প্রয়োজন মনে করলে সেনাবাহিনী নামবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীজিরোদের ঐক্যের ফল জিরোই হবে: অর্থমন্ত্রীআইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুতে সেলিব্রিটিদের আবেগঘন প্রতিক্রিয়াঅনশনকারী সেই শিক্ষার্থী হাসপাতালে
No icon

‘টাইগারের’ হাত ধরে এল টাইগার

বলিউডের টাইগার বলতে এখন একজনকেই বোঝায়, তিনি হলেন সালমান খান। বলিউডের এই টাইগারের হাত ধরে প্রকাশিত হলো বীণা ককের বই ‘সাইলেন্ট সেন্টিনেলস অব রান্থামবোর’। গতকাল মুম্বাইয়ের তাজ ল্যান্ড এন্ডসে এই বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে সালমান খান ছাড়া উপস্থিত ছিলেন ক্যাটরিনা কাইফ, সেলিম খান, হেলেন, প্রিয়া দত্ত, কবির খান, আলি আব্বাস জাফরসহ অনেকে। ‘সাইলেন্ট সেন্টিনেলস অব রান্থামবোর’ বইটির লেখিকা এবং চিত্রগ্রাহক বীণা কক প্রথম আলোকে জানান ‘রান্থামবোর’-এর ঘন জঙ্গলে তাঁর জীবন্ত বাঘের সামনাসামনি হওয়ার কথা। তিনি বলেন, ‘প্রথম প্রথম জঙ্গলে সত্যি খুব ভয় করত। কিন্তু ধীরে ধীরে উপলব্ধি করি, জঙ্গলের এই পশুরাও আমাদের ভাষা বোঝে। আমাদের সঙ্গে সংযোগ করতে পারে। আমার গুরু মাইক পাণ্ডের কাছে ফোটোগ্রাফি শিখে জঙ্গলের নানা মুহূর্তকে ক্যামেরাবন্দী করতে শিখি। সামনে থেকে একটা বাঘের দর্শনের জন্য দীর্ঘ আট ঘণ্টা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হতো। আর বাঘগুলো যখন হেলেদুলে আমার সামনে আসত, তখন এদের র‍্যাম্পে হাঁটা মডেলদের চেয়ে অনেক বশি সুন্দরী লাগত।’

সেলিম খান এবং তাঁর পরিবার সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘আমি আজ অত্যন্ত খুশি যে সেলিম খান, সালমান খান, হেলেন—তাঁরা সবাই আমার এই বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে এসেছেন। তাঁদের এই পরিবারটি আজকের যুগে এক আদর্শ পরিবার। মানুষের পাশে কীভাবে দাঁড়াতে হয়, তা এই পরিবার থেকে শেখা।’বলিউড সুপারস্টার সালমান খান বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে বলেন, ‘আমার মনে হয় এই বইটি খুব ভালো, কারণ বইটি প্রকাশের আগেই আমি সব ছবি দেখেছি। বীণার এই বইটির সব ছবি অসাধারণ।’

২২ ডিসেম্বর মুক্তি পেতে চলেছে সালমান খান ও ক্যাটরিনা কাইফ অভিনীত ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ ছবিটি। আর সেই সূত্রে বলিউডের ভাইজান বলেন, ‘সব সময় আমার ছবি মুক্তির সময় বীণার বই প্রকাশ হয়। এর আগে আমি যখন আলি আব্বাস জাফরের “সুলতান” ছবিতে কাজ করছি, তখন বীণা “সুলতান” নামের এক বাঘের ওপর বই প্রকাশ করে। তবে তখন আমি সেই অনুষ্ঠানে যেতে পারিনি।

এবার আমার “টাইগার জিন্দা হ্যায়” মুক্তির আগেই এই বইটি প্রকাশিত হলো। আমি এখন বুঝতে পারছি না যে আমি নিজের ছবি প্রচারণায় এসেছি, না বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে এসেছি।’ সালমান চিরাচরিত ভঙ্গিতে মজার সুরে বলেন, ‘বন্য পশুর ওপর যত কম কথা বলা যায় তত ভালো। আমি পুরোপুরি সহমত যে বন্য পশুরা খুব ভদ্র। মানুষের চেয়েও এরা বেশি ভদ্র। বীণা এরপর নেকড়ে, প্যান্থার, ডিডির ওপর কিছু হয়তো লিখবে।’ তবে এখানেই চুপ করে যান বলিউডের সুলতান। কারণ, ডিডি নামের সঙ্গে সঙ্গে যদি ‘কৃষ্ণাঙ্গ হরিণ’ কেসের প্রসঙ্গ উঠে আসে। বাকিটা তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের ইশারাতে বুঝিয়ে দেন।