কাশ্মীরে নজর ট্রাম্পের, বৈঠকে কথা হবে মোদীর সঙ্গেবঙ্গবন্ধুর খুনিদের কেন পালানোর সুযোগ দিলেন জিয়াপাঁচ দিনের রিমান্ডে ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রীডিসেম্বরের মধ্যে প্রাথমিকে আরো ২০ হাজার শিক্ষক নিয়োগসোশ্যাল মিডিয়ায় ‘গুজব ছড়াতেন’ মানসুর আহম্মদ
No icon

বাংলাদেশে ১০ দিনে আয় ৬ কোটি টাকা

অ্যাভেঞ্জার্স : এন্ডগেম মুক্তির ১০ দিন পর্যন্ত বাংলাদেশে প্রায় ছয় কোটি টাকা ব্যবসা করেছে। দেশি-বিদেশি মিলিয়ে সিনেপ্লেক্সগুলোতে এটাই কোনো ছবির সর্বোচ্চ মুনাফা। ২৬ এপ্রিল থেকে এন্ডগেম ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্স, সীমান্ত সম্ভার, ব্লকবাস্টার সিনেমাজ ও চট্টগ্রামের সিলভার স্ক্রিনে চলছে। ৩০ এপ্রিল প্রথম পাঁচ দিনের আয় হিসাব করে দেখা যায়, তিন কোটিরও বেশি মুনাফা করেছে ছবিটি। চারটি প্রেক্ষাগৃহের শো এবং টিকিটের মূল্য হিসাব করে এই তথ্য পাওয়া গেছে। স্টার সিনেপ্লেক্সের সিনিয়র ম্যানেজার (মিডিয়া ও মার্কেটিং) মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, আমরা পাঁচ দিন পর একটা প্রাথমিক হিসাব করেছি। সেখানেও প্রায় এ রকমই একটা অঙ্ক এসেছিল। সেই হিসাবে ১০ দিনে আয় দ্বিগুণ হওয়ার কথা। কারণ মুক্তির প্রথম দিন থেকেই আমরা ১৭টি করে শো চালিয়ে আসছি। এখন পর্যন্ত ছবিটি নিয়ে দর্শকদের আগ্রহ আগের মতোই আছে। প্রতিটি শো হাউসফুল হচ্ছে।

মেজবাহ উদ্দিন আরো বলেন, স্টার সিনেপ্লেক্স চালুর পর থেকে অ্যাভেঞ্জার্স : এন্ডগেমই সবচেয়ে বেশি আয় করা ছবি। সিনেপ্লেক্সে প্রথম পাঁচ দিনে এন্ডগেম-এর ২৫ হাজারের বেশি টিকিট বিক্রি হয়েছে। ৮০০, ৫৫০, ৫০০ ও ৪৫০ টাকা মূল্যের টিকিট থেকে এসেছে এক কোটি ২০ লাখ টাকার বেশি। ব্লকবাস্টার সিনেমাজে প্রতিদিন চার হাজার ৫২০ জন ছবিটি দেখার সুযোগ পায়। সেই হিসাবে ১০ দিনে ৪৫ হাজারেরও বেশি মানুষ ছবিটি দেখেছে।

চট্টগ্রামের সিলভার স্ক্রিনে প্রতিদিন ছবিটির আটটি শো চলছে। প্রেক্ষাগৃহটির বিজনেস ক্লাস ও প্লাটিনাম এ দুই ক্যাটাগরির টিকিটের দাম ১৫০০ ও ১০০০ টাকা। তবে রমজান মাসে এন্ডগেম -এর ব্যবসায় খানিকটা ভাটা পড়তে পারে। এ মাসে ছবির প্রদর্শনী কমানোর কথা জানিয়েছে প্রেক্ষগৃহগুলো।