অধ্যক্ষ সিরাজের পক্ষে আদালতে দাঁড়াননি কোনো আইনজীবীঢাকার ৮৪ শতাংশ বহুতল ভবনই ত্রুটিপূর্ণরাজস্ব কর্মকর্তা হিসেবে আউট সোর্সিংয়ে ১০ হাজার শিক্ষার্থী নিয়োগসুন্দরবনে বাঘের সংখ্যা বেড়েছেবেশি দামে টিকিট বিক্রি : হানিফ এস আর ট্রাভেলসকে জরিমানা
No icon

‘ম্যাডাম ফুলি’ খ্যাত শিমলা কোথায়?

ঢাকাই ছবির এক সময়ের আলোচিত নায়িকা ম্যাডাম ফুলি খ্যাত শিমলা। ১৯৯৯ সালে মুক্তি পাওয়া প্রথম ছবিতেই শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর ক্যাটাগরিতে পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। শহীদুল ইসলাম খোকন পরিচালিত সেই ছবির নাম ম্যাডাম ফুলি সেই থেকে ম্যাডাম ফুলি নামেই চলচ্চিত্রে পরিচিতি শিমলার। এক সময়ের আলোচিত এ নায়িকার ক্যারিয়ারে ভাটা চলছে প্রায় ১০ বছর হলো। তার সর্বশেষ অভিনীত ছবি নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প। পরিচালক রুবেল আনুশ। ছবিটির শুটিং নিয়ে পরিচালকের সঙ্গে বিরোধে জড়িয়ে পড়ায় আলোচনায় ছিলেন কিছু দিন। সম্প্রতি তার কোনো আলোচনা না থাকলেও বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইট ছিনতাইয়ের ঘটনার চেষ্টায় নিহত যুবক পলাম আহমেদের নিহতের পরই তার নাম প্রকাশ্যে চলে আসে। এরপরই খোঁজ পরে শিমলার।

নিহত বিমান ছিনতাইকারী চিত্রনায়িকা শিমলার স্বামী। এসূত্রেই এখন আলোচনায় শিমলা।

র‌্যাব জানায় ময়ূরপঙ্খী ছিনতাই চেষ্টাকারীর নাম পলাশ আহমেদ। ২৪ বছর বয়সী পলাশের গ্রামের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার দুধঘাটা গ্রামে।

এদিকে পলাশ আহমেদের সয়্গে গত বছরের প্রথম দিনে বিয়ে নিয়ে খবরের শিরোনাম হন শিমলা। নিহত পলাশের পিতা জানান, শিমলা পলাশের দ্বিতীয় স্ত্রী। এর আগে পলাশ বগুড়ায় বিয়ে করে।

একটি সূত্র জানায়, পলাশ ও শিমলার মধ্যে দাম্পত্য কলহ দেখা দিয়েছে। আর এ নিয়ে শিমলার আগ্রহেই বিচ্ছেদ হয়। কিন্তু এমন বিচ্ছেদ মেনে নিতে পারেননি পলাশ। হতাশায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন।

এদিকে ছিনতাইয়ের ঘটনা চাউর হওয়ার পর থেকে গণমাধ্যমে আলোচনায় আসার পর থেকে শিমলার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু তাকে কোথাও পাওয়া যায়নি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শিমলা এক সময় মগবাজারের ডাক্তার গলিতে থাকতেন। এখন সেখানে তিনি থাকেন না। তার মোবাইল ফোনও বন্ধ।

তার একসময়ের এক পরিচালক বন্ধু জানান, শিমলা কিছুদিন রাজধানীর উত্তরায় থেকেছেন। এখন সেখানেও থাকেন না।

তাহলে কোথায় আছেন শিমলা? খোঁজ নিয়ে আরও জানা গেছে, ১০ বছরের ক্যারিয়ারে ভাটা চলায় নায়িকা থাকছেন না দেশে। বর্তমানে ভারতের মুম্বাইয়ে থাকছেন শিমলা।

সেখানে মীরা রোড নামের একটি এলাকায় বসবাস করছেন। তবে এ তথ্যের সত্যতা যাচাই করা যায়ানি।