নায়করাজ রাজ্জাক আর নেই মক্কার হোটেলে আগুন, সরিয়ে নেয়া হলো ৬০০ হজযাত্রী মক্কার হোটেলে আগুন, সরিয়ে নেয়া হলো ৬০০ হজযাত্রীপুলিশ প্রতি পাসপোর্ট ভেরিফিকেশনে ঘুষ নেয় ৭৯৭ টাকা অনড় প্রধান বিচারপতি, দ্বিধাদ্বন্দ্বে সরকার
No icon

‘আইন মানতে’ ভিপিএন অ্যাপ সরিয়েছে অ্যাপল

বিভিন্ন দেশে রাষ্ট্রীয় নজরদারি ও সেন্সরশিপ এড়াতে ভিপিএন ব্যবহার করা হয়ে থাকে। অ্যাপলের এই পদক্ষেপের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটি ‘চীনের সেন্সরশিপ চেষ্টায়’ সহায়তা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে, খবর বিবিসি’র। মার্কিন টেক জায়ান্টটি বলেছে, তারা চীনের অবস্থানের সঙ্গে অসম্মতি প্রকাশ করেছে কিন্তু তাদেরকে দেশটির আইন মানতে হবে। মঙ্গলবার কুক বলেন, “না হলে অবশ্যই আমরা অ্যাপগুলো সরাতাম না।”
“কিন্তু অন্যান্য দেশের মতো যেখানেই আমরা ব্যবসায় করি না কেন আমরা স্থানীয় আইন মেনে চলি।” এক্ষেত্রে ২০১৬ সালে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের সঙ্গে স্যান বার্নার্ডিনো হত্যাকাণ্ডের আসামীর আইফোন আনলক করা নিয়ে প্রতিষ্ঠানটির আইনি লড়াই চালানোর প্রসঙ্গ টেনে আনেন তিনি। “যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষেত্রে মার্কিন আইন আমাদের পক্ষে ছিল। আমি একদম স্পষ্ট ছিলাম। চীনে ক্ষেত্রেও আইন পুরোপুরি স্পষ্ট। যুক্তরাষ্ট্র আইন বদলে দিতে আমরা যা করতাম এখানেও তাই, দুই ক্ষেত্রেই আমাদেরকে আইন মেনে চলতে হবে”- মন্তব্য কুক-এর।

চীনে কোনো ভিপিএন সেবা চালাতে প্রতিষ্ঠানগুলোকে অবশ্যই দেশটির কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমোদন নিতে হয়। এক্সপ্রেস ভিপিএন-এর মতো অনুমতি নেই এমন ভিপিএন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর অ্যাপ অ্যাপলের অ্যাপ স্টোর থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। এক্সপ্রেস ভিপিএন তাদের এক ব্লগ পোস্টে বলে, “এটি এখন পর্যন্ত ভিপিএন ব্যবহার বন্ধে চীনা সরকারের নেওয়া সবচেয়ে কঠোর পদক্ষেপ, আমরা এতে হতাশ। অ্যাপল চীনের সেন্সরশিপ চেষ্টায় সহায়তা করছে দেখে আমরা ক্ষুদ্ধ।” কুক বলেন, অ্যাপল ‘যথাযথ’ মাধ্যমে এই অ্যাপ সরানো নিয়ে তাদের বিরোধিতা ব্যক্ত করেছে। “আমরা যখন অসম্মতি প্রকাশ করি তখনও সরকারের সঙ্গে সম্পৃক্ত হওয়াতে বিশ্বাস করি।”