সোমবার থেকে ঝোলাতে হবে চালক-হেলপারের নাম-ছবি-নম্বরকোটি টাকার এসএমএসে খালি হবে ব্যাংক!ফুটবলে নতুন ইতিহাস গড়লো বাংলাদেশঢাকায় পৌঁছাল দেশের প্রথম ড্রিমলাইনার ‘আকাশবীণা’১১ নোবেলজয়ী ও ১৭ বিশিষ্টজন, শহিদুল আলম ও শিক্ষার্থীদের মুক্তি চান
No icon

গণতন্ত্র না থাকলে বিএনপি সমালোচনা করতে পারত না: কাদের

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশে গণতন্ত্র না থাকলে বিএনপি নেতারা প্রকাশ্যে সরকারের বিরুদ্ধে সমালোচনা করতে পারত না। মন্ত্রী-এমপিদের নিয়ে কটাক্ষ করতে পারত না। গণতন্ত্র আছে বলেই তারা যেখানে খুশি সেখানে সভা-সমাবেশ করতে পারছে। সোমবার রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে আওয়ামী যুবলীগ আয়োজিত বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গ্রেফতার দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি ভাঙা রেকর্ড বারবার বাজিয়ে যাচ্ছে, এটি জনগণ জানে। গঠনতন্ত্রের ৭ ধারা বাতিল করে তারা বিপাকে পড়েছে। এ ধারা বাতিলের মধ্য দিয়ে চিহ্ণিত দুর্নীতিবাজদের দলে টানছে। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও তার ছেলে তারেক রহমানকে মাইনাস করেছে।

যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরীর সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য মুজিবুর রহমান চৌধুরী, শহীদ সেরনিয়াবাত, অ্যাডভোকেট বেলাল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক আতিক, যুবলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট, উত্তরের সভাপতি মাঈনুল হোসেন খান নিখিল প্রমুখ।

ওবায়দুল কাদের বলেন, যারা ধ্বংসস্তূপের ওপর দাঁড়িয়ে সৃষ্টিশীল অর্জন করতে পারে তারাই শেখ হাসিনার কর্মী। তাই আগামী জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনতে এখন থেকেই দলের নেতাকর্মীদের কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন, নির্বাচনে জয়ী হতে না পারলে আমাদের সব অর্জন বৃথা যাবে। শেখ হাসিনা ৪০ বছরের সফল নেত্রী। তিনিই পারবেন দেশকে উন্নয়নের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে।

দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করেন। দলের জন্য ত্যাগ স্বীকার করলে বৃথা যাবে না। আওয়ামী লীগে এক নেতা আরেক নেতার বিরুদ্ধে সমালোচনা করে না কিন্তু বিএনপিতে পাশে বসেই একজন আরেকজনের বিরুদ্ধে সমালোচনা করে। এটিই হলো শেখ হাসিনার নেতৃত্ব।

আওয়ামী যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন, আন্দোলন ছাড়া সংগঠন শক্তিশালী হয় না। আর সে জন্য কর্মসূচি প্রয়োজন। কর্মসূচি গ্রহণ করতে হবে। শুধু সভা-সমাবেশ করলে হবে না।

তিনি বলেন, গণতন্ত্র এবং জনগণের অধিকার হরণের জন্য সেদিন শেখ হাসিনাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। শেখ হাসিনার দৃঢ নেতৃত্বের জন্যই দেশ আজ বিশ্বে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। এ ধারা অব্যাহত রাখতে হলে আগামী জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনতে হবে। সে জন্য নেতাকর্মীদের কাজ করতে হবে।