বরিশাল ও বরগুনার ডিসি প্রত্যাহারসিদ্দিকুরকে বিদেশে পাঠানো হবে : কাদের৫৭ ধারা সাংবাদিক হয়রানির জন্য নয় : প্রধানমন্ত্রী তারিক সালমানের ঘটনায় বরিশাল ও বরগুনার ডিসি প্রত্যাহারপ্রথম দিনেই সাক্ষ্য হয়নি ‘রেইন ট্রি’ ধর্ষণ মামলায়
No icon

এক চোখে ২৭টি কন্টাক্ট লেন্স!

এক চোখে সাধারণত একটি কন্টাক্ট লেন্সই লাগানোর নিয়ম। তবে যুক্তরাজ্যে ৬৭ বছর বয়সী এক নারীর চোখ থেকে বের করা হয়েছে ২৭টি লেন্স! এর মধ্যে ১৭টি লেন্স একটির ওপরে আরেকটি লেগে গিয়েছিল। প্রাথমিকভাবে এগুলো বের করা হয়। পরে আবার পরীক্ষা চালিয়ে মেলে আরও ১০টি লেন্স। পিটিআইয়ের খবরে বলা হয়েছে, গত বছরের নভেম্বর মাসে ওই নারীর চোখের ছানির অস্ত্রোপচার করতে গিয়ে এসব লেন্স পাওয়া যায়। ২৭টি লেন্সের কারণে বৃদ্ধার চোখে নীল রঙের আস্তর পড়ে গিয়েছিল। এ ঘটনা নিয়ে সম্প্রতি ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নালে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এতগুলো লেন্সের কারণে ওই নারীর চোখ শুকিয়ে গিয়েছিল ও কিছু জ্বালাপোড়া হচ্ছিল। তবে তিনি ভেবেছিলেন, বয়স বেশি হওয়ায় এ অবস্থা হয়েছে। বার্মিংহামের কাছে সোলিহাল হাসপাতালে এই বৃদ্ধার চোখের চিকিৎসা হয়। হাসপাতালের চক্ষু চিকিৎসক রুপাল মোরহারিয়া ওই নারীর চিকিৎসা করেন। তিনি বলেন, ‘এমন ঘটনা আমরা আগে কখনো দেখিনি। ১৭টি লেন্স একসঙ্গে লাগানো ছিল। চোখ থেকে মোট ২৭টি লেন্স বের করেছি। এতগুলো লেন্স থাকলে প্রচুর জ্বালাপোড়া ও অস্বস্তি হওয়ার কথা। কিন্তু ওই নারী কিছুই বুঝতে না পারায় আমরা আশ্চর্য হয়েছি।’ অস্ত্রোপচারের আগে এতগুলো লেন্স পাওয়ার পর পিছিয়ে দেওয়া হয় অস্ত্রোপচারের দিনক্ষণ। ওই রোগী ৩৫ বছর ধরে কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহার করছেন। নিজের চোখ থেকে এতগুলো লেন্স বের হতে দেখে নাকি তাঁর ভিরমি খাওয়ার জোগাড়! চিকিৎসক রুপাল মোরহারিয়া বলেন, ‘দুই সপ্তাহ পর লেন্সগুলো তিনি দেখতে এসেছিলেন। তিনি বলেছেন, এখন চোখে বেশ আরাম পাচ্ছেন।’

আশ্চর্যের বিষয় হলো, অস্ত্রোপচারের আগে করা পরীক্ষায় ওই নারীর চোখে থাকা লেন্সগুলোর অস্তিত্ব ধরা পড়েনি।