বাংলাদেশকে বন্ধুরাষ্ট্র বললেও নিরীহ মানুষ হত্যা করছে ভারত: কিরিটি রায়ভাষানচরে স্থানান্তর রোহিঙ্গাদের ইচ্ছায় হতে হবে : ইউএনএইচসিআরঅতিরিক্ত যাত্রী ওঠায় ছিঁড়ে পড়ে লিফটটিব্রিটেনে একরাতে পাঁচ মসজিদে হামলা, ভাঙচুরআমরা আমাদের শিক্ষাকে ‘ব্র্যান্ডিং’ করতে চাই : দীপু মনি
No icon

পাকিস্তানে শীতেও লোডশেডিং, ক্ষুব্ধ ইমরান খান

প্রচণ্ড শীতেও লোডশেডিংয়ে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন পাকিস্তানের নাগরিকরা। এ নিয়ে দুজন মন্ত্রীর পারস্পরিক দোষারোপে ক্ষুদ্ধ হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। খবর বিবিসির। পাকিস্তানের গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, পাওয়ার এবং পেট্রোলিয়াম বিভাগের গাফলতির কারণে দেশটির ২২ কোটি মানুষের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।যার মূলে রয়েছে ফেডারেল মন্ত্রী গোলাম সরওয়ার খান এবং ওমর আইয়ুবের পারস্পরিক মতবিরোধ।তারা একে অন্যের ওপর দায় চাপাচ্ছেন। দুটি বিভাগের এ সমন্বয়হীনতার কারণে এলএনজি সময়মত আমদানি করা যায়নি। যার কারণে রাষ্ট্রের ১২ মিলিয়ন রুপি হারাতে হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে চটেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী। ফেডারেল ক্যাবিনেট কমিটির সভায় ইমরান খান বলেন, আমি বিভিন্ন দেশ থেকে সাহায্য সংগ্রহ করছি, আর আপনারা দেশের সম্পদ অপচয় করছেন।

সূত্র বলছে, এলএনজি সময়মত আমদানি না করার কারণে অনেক পাওয়ার প্ল্যন্ট বন্ধ হয়ে গেছে। তাপ বিদ্যুতের উদ্ভিদ চালান ১২ থেকে ১২ মিলিয়ন ডলারের ক্ষতির কারণ হয়ে দাড়িয়েছে।যা গ্রাহকদের জানুয়ানির বিদ্যুত বিলে বাড়তি চাপ হবে।

২০১৮ সালের ডিসেম্বরে পাওয়ার সেক্টরে ১৮০ থেকে ২০০ এমএমসি এফডি গ্যাস সরবরাহ করা হয়।গ্যাসের এ স্বল্পতার কারণে ব্যয়বহুল চুল্লি তেল থেকে বিদ্যুত উৎপাদন করতে হয়েছে।