পুঁজিবাজারে আসছে প্রণোদনার ৮৫ কোটি টাকাডেঙ্গুর ভয়াবহতায় আতঙ্কে খোদ চিকিৎসকরাওপ্রিয়া সাহা কখনও আমার গবেষণা সহযোগী ছিলেন না: ড. বারাকাতখাবার নেই, সাড়ে ৯ লাখ বানভাসির হাহাকারহিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ থেকে প্রিয়া সাহা বরখাস্ত
No icon

কচুয়ায় ক্লাস চলাকালীন জ্ঞান হারালো অর্ধশতাধিক ছাত্রী

চাঁদপুরের কচুয়ায় ক্লাস চলাকালীন একই বিদ্যালয়ের প্রায় অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থীর জ্ঞান হারানোর ঘটনা ঘটেছে। তাদেরকে কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়েছে। আজ (মঙ্গলবার) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার নন্দনপুর ইউনিয়নের নন্দনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে। ছাত্রীদের এমন জ্ঞান হারানোকে গণ হিস্টিরিয়া বলছেন চিকিৎসকেরা। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হারাধন ভৌমিক বলেন, সকাল ১১টার দিকে অষ্টম শ্রেনীর একজন ছাত্রী হঠাৎ মাথা ঘুরাচ্ছে বলে আসন থেকে পড়ে যায় ও জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। এরপর একইভাবে ৬ষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত প্রায় ৫০জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়ে। দুপুর দেড়টার দিকে এসব অসুস্থ ছাত্রীকে বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও আশপাশের অভিভাবকদের সহযোগিতায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয় বলে জানান হারাধন ভৌমিক।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ফারিয়া, লিজা, সিয়াম, ওম্মে আয়মা, আফরিন, সুমাইয়া, মীম, রোকসানা, তানজীনা, তামান্না, সাবনুর, হালিমা, জেসমিন, সুমাইয়া, তাহমিনা, খাদিজা, রোকেয়া ও সুমাইয়া আক্তার নামের শিক্ষার্থীসহ প্রায় ৪৬জন এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে জানা গেছে।

আক্রান্তদের অনেকেই সুস্থ হয়ে উঠছেন জানিয়ে কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) সোহেল রানা বলেন, শিক্ষার্থীদের নিয়ে আসার পর পরই আমরা চিকিৎসা দিয়েছি।

আচমকা এভাবে বিদ্যালয়ের এতো শিক্ষার্থী কেন অসুস্থ্য হয়ে পড়ল জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি, একজন অসুস্থ্য হয়ে পড়ায় বাকীদের মধ্যে আতংক কাজ করেছে। এ কারণে বাকীরাও অসুস্থ হয়ে পড়ে।

পুরো বিষয়টা মানসিক বলে ধারণা করছেন তিনি।

এ বিষয়ে চাঁদপুরের সিভিল সার্জন ডা. মাহবুবুর রহমান জানান, হিস্টিরিয়ায় আক্রান্ত হলে ভয়ের কিছু নেই। আক্রান্তরা আজকের মধ্যেই সেরে উঠবে বলে আশা করছি।